1. admin@apontelevision.com : admin :
শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ০৪:১৪ অপরাহ্ন

বগুড়ার নন্দীগ্রামে আজোয়া খেজুর চাষ করে আবু হানিফার চমক।

Reporter Name
  • আপডেট টাইম : রবিবার, ৩০ জুলাই, ২০২৩
  • ১২১ বার পঠিত

বগুড়া জেলা প্রতিনিধি ঃ

মরুভূমির চরমভাবাপন্ন আবহাওয়ায় উৎপাদিত ফল খেজুর সেটা যদি হয় আবার বগুড়ার নন্দীগ্রামের মাটিতে ফলানো তা দেখা যায় অনেকটা কল্পনার মতো।

তবে সেই অসাধ্যকে সাধন করেছেন বগুড়া জেলার নন্দীগ্রাম উপজেলার থালতা মাজগ্রাম ইউনিয়নের আমড়া গোহাইল গ্রামের চাষি আলহাজ্ব আবু হানিফা। তাঁর গাছে এখন থোকায় থোকায় মরুভূমির আজোয়া খেজুর ঝুলছে।

এ বাগানে সাথী ফসল হিসেবে তিনি চাষ করেছেন আম, বড়ই ও জাম্বুরা। নিজ বাড়ির সাথে পতিত ৯ শতক জায়গায় সারিবদ্ধভাবে লাগানো ১৩টি সৌদির আজোয়া খেজুরগাছ তাকে নতুন স্বপ্ন দেখাচ্ছে। গত বছর একটি গাছে অল্প কিছু খেজুর পেলেও এবার দুইটি গাছে বেশ খেজুর ধরেছে। শুধু তাইনা খেজুর বাগানের পাশাপাশি তিনি গত বছরের সংগ্রহ করা বীজ থেকে চারাও তৈরি করছেন। আবু হানিফার বাগানে এ খেজুর দেখতে অনেক মানুষ ভিড় করছে।

খেজুর চাষি আলহাজ্ব আবু হানিফা জানান, হজ্জ করতে গিয়ে সৌদিতে আমি অনেক খেজুর বাগান ঘুরে দেখি। তখনি আমার খেজুর চাষের ইচ্ছে জাগে। পরে আজোয়া জাতের খেজুরের ১৬টি বীজ সংগ্রহ করি। সেই বীজ ২০১৯ সালে মাটিতে রোপণ করি। আস্তে আস্তে বড় হতে থাকে গাছগুলো। সেই গাছগুলোর মধ্যে একটিতে গত বছর অল্প কিছু ফল ধরেছিল। এবার দুইটি গাছে ভালো ফল ধরেছে।

১০-১৫ দিনের মধ্যে খেজুরগুলো পরিপূর্ণ ভাবে পেকে যাবে। পরের বছর হয়তো আরও কিছু গাছে ফল আসবে। নিজের বাগান বৃদ্ধি ও চারা বিক্রি জন্য এখন আমি আজোয়া ও মরিয়ম জাতের খেজুরের বীজ সংগ্রহ করে চারা তৈরি করছি। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা আদনান বাবু এই প্রতিনিধিকে জানান, আমি আবু হানিফার খেজুর বাগানে মাঝে মাঝে যাই।

নন্দীগ্রাম উপজেলায় তিনিই প্রথম সৌদির আজোয়া খেজুর চাষ করছেন। কৃষি অফিসের পক্ষ থেকে তাকে সব রকমের সহযোগিতা ও পরামর্শ দেয়া হয়। সে এখন খেজুরগাছে চারাও উৎপাদন করছে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর
All rights reserved © 2024
Design By Raytahost